Friday, January 21, 2022

পুষ্টি গ্রাম গঠন

পুষ্টি গ্রাম গঠন: ‘পুষ্টি গ্রাম’ গঠন ও গ্রাম পরিদর্শন: ‘পুষ্টি গ্রাম’ গঠনে প্রতিটি কিশাের/কিশােরী ক্লাব যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। প্রতি ৩ মাসে পর্যায়ক্রমে গ্রামের বা মহল্লার সকল বাড়ি কমপক্ষে একবার পরিদর্শন করবে। এ সময়ে বাড়িতে সবজি চাষ; হাঁস, মুরগি ও ছাগল পালন; সজনে, লেবু, পেঁপে ও যেকোন একটি ঔষধি গাছ। লাগানাে; স্বাস্থ্যসম্মত রান্না ও সুষম খাদ্য সম্পর্কে ধারণা প্রদান; স্বাস্থ্য সম্মত টয়লেট ব্যবহার; ব্যক্তিগত পরিষ্কার পরিছন্নতা; প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের দৈনন্দিন কাজে সহায়তা; ইত্যাদি বিষয়ে বাড়ির সদস্যকে উৎসাহিত করবে।

ষ্টি বাগান: কিশাের/কিশােরী ক্লাবের সদস্যরা নির্দিষ্ট জমিতে ‘পুষ্টি বাগান গড়ে তুলবে। বাগানে বিভিন্ন পুষ্টিকর সবজি, ফল ও ঔষধি

গাছ লাগানাে হবে। সঠিক পরিচর্যার মাধ্যমে বাগানটি সাধারন মানুষের কাছে

একটি আদর্শ বাগান হিসেবে পরিচিত হবে এবং এমন বাগান কৈরিতে অন্যরা উৎসাহিত হবে। ৩.৩.৩ লাইব্রেরি: যেকোন ধরনের

জ্ঞানার্জনে পড়ার কোন বিকল্প নেই ।কিশাের/কিশােরী ক্লাবকে একটি লাইব্রেরি

তৈরিতে উদ্বুদ্ধ করা হবে। লাইব্রেরিটি ক্রমে সমৃদ্ধ করা হবে। ৩.৩.৪স্বাস্থ্য ক্যাম্প কিংবা ব্লাড গ্রুপিং কার্যক্রম পরিচালনা: ৬-মাস

অন্তর কিশাের/কিশােরী ক্লাবের উদ্যোগে সহযােগী সংস্থা, কমিউনিটি ক্লিনিক এবং স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র-এর সহযােগিতায় স্বাস্থ্য

ক্যাম্প’ কিংবা ব্লাড গ্রুপিং কার্যক্রম পরিচালনা করা যেতে পারে।

৩.৩.৫ বিনােদনমূলক/পিকনিক/প্রতিযােগিতামূলক কার্যক্রম বাৎসরিক একবার কিশাের/কিশােরী ক্লাবের উদ্যোগে

সদস্যদের জন্য বিনােদনমূলক/পিকনিক/প্রতিযােগিতামূলক (বই পড়া, স্বরচিত কবিতা/গল্প লিখন, গান, কুইজ ইত্যাদি) কার্যক্রম

আয়ােজন করা যেতে পারে যা ‘কিশাের/কিশােরী ক্লাব ডে’ নামে আখ্যায়িত হতে

পারে। ৩.৩.৬ বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রতিরােধ কমিটির সভা: প্রতিটি কিশাের/কিশােরী ক্লাবের উদ্যোগে গ্রামের সচেতন

অভিভাবকদের নিয়ে ৭-৯ সদস্য বিশিষ্ট একটি বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রতিরােধ কমিটি গঠন করা এবং

বছরে কমপক্ষে ২ বার কমিটির সাথে সভা করা। ৩.৩.৭দেয়াল পত্রিকা প্রকাশ: ইস্যুভিত্তিক দেয়াল পত্রিকা প্রকাশ করা। এক্ষেত্রে “দেয়াল পত্রিকা নির্দেশিকা” দেখা

যেতে পারে। ৩.৩.৮ ঝড়ে পড়া শিশু।

পুষ্টি গ্রাম গঠন

বৈকালিক পাঠশালা পরিচালনা: কিশাের/কিশােরী ক্লাব গ্রামের কোনাে ঝড়ে পড়া শিশুকে

পুনরায় স্কুলে ভর্তিকরণে সহযােগিতা প্রদান এবং গ্রামের পিছিয়ে পড়া শিশুদের বিশেষ করে প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষা

নিশ্চিতকরণে কাজ করার পাশাপাশি কিশাের/কিশােরী ক্লাব কর্তৃক প্রতিবন্ধী

শিশুদের/একীভূত বৈকালিক পাঠশালা’ পরিচালনা করা যেতে পারে। ৩.৩.৯ গাছের চারা বা সবজি বীজ বিতরণঃক্লাবের উদ্যোগে

বছরে ১/২ বার গ্রামে গাছের চারা কিংবা সবজি বীজ

বিতরণ করা যেতে পারে। গাছের চারা বিতরণে দেশজ প্রজাতিকে অগ্রাধিকার প্রদান করতে হবে। ৩.৩.১০ প্রতিবন্ধী ব্যক্তির

অধিকার স্মপর্কে নিজেরা সচেতন হবে এবং অন্যদের সচেতন করবে। পাশাপাশি প্রতিবন্ধী

ব্যক্তি যেন সরকারী সুযােগ-সুবিধা পায় সেজন্য তাদের নিবন্ধনের বিষয়ে সচেতন করবে এবং এ সংক্রান্ত

তথ্য প্রদান করে সহায়তা করবে। ৩.৩.১১ কিশাের/কিশােরী ক্লাব এর মাসিক কর্ম পরিকল্পনা প্রণয়ন: প্রতি মাসের প্রথম শুক্রবার

নির্ধারিত দিনে

পুষ্টি গ্রাম গঠন

আরও পড়ুন : স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১ | DGHS job

ফেসবুকে আমাদের সাথে যুক্ত হোন

প্রতিদিন ও সাপ্তাহিক চাকরির খরর, প্রস্তুতি এবং চাকরি বিষয়ক বিভিন্ন আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন।

এই ক্যাটাগরির অন্যান্য পোস্ট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest Articles

spot_img